আজ আমাদের সংস্থার সদস্য প্রণবেন্দু সাহা এবং বিশাল রায় কুলিকের জলে একটি মরা কুকুরকে ভেসে থাকতে দেখে।কাছে গিয়ে দেখা যায় কুকুরটিকে পাথর বেঁধে কুলিকের জলে ফেলে রাখা হয়েছে। কুকুরটির সারা গায়ে মাছি এবং পোকামাকড়ে ভরে গেছে এবং এর ফলে কুলিকের জল দূষিত হচ্ছে ।চারিদিকে যখন ভাগাড়ে কান্ড নিয়ে এত হইচই সেই সময়ে এই ধরনের ঘটনায় আমরা সত্যিই আশ্চর্য। আমরা চাই পরিবেশ দূষণ রোধে প্রশাসন সঠিক ভাবে নজরদারি করুক। পাশেই আমাদের কুলিক পক্ষীনিবাস। কুলিকের জল দূষিত হলে আমাদের এই গর্বের পক্ষীনিবাস এরও অস্তিত্ব সংকট হবে। আমরা চাই সিসিটিভি ক্যামেরার মাধ্যমে 24 ঘনটা নজরদারির ব্যবস্থা করা হোক যাতে সেখানে মৃত পশুর দেহাবশেষ কেউ ফেলে যেতে না পারে এবং কোনো ধরনের দুর্ঘটনা না ঘটে। আমরা কুকুরটিকে তুলে নিয়ে ভাগাড়ে ফেলে আসার জন্য পঞ্চায়েত কে অনুরোধ করেছি ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *